সুন্নাতি খাবার কদু (اَلدُّبَّاءُ) দুব্বা
 

সুন্নাতি খাবার কদু (اَلدُّبَّاءُ) দুব্বা

ট্যাগ সমূহ: সুন্নাতি খাবার কদু (اَلدُّبَّاءُ) দুব্বা

  • ৳ ৮০


কদু একটি লতা জাতীয় উদ্ভিদের ফল। হযরত ইউনূস আলাইহিস সালাম তিনি যেখানে মাছের পেট থেকে বের হয়েছেন সেখানে মহান আল্লাহ পাক তিনি একটি কদু গাছ উদ্গত করে দিয়েছিলেন।

এ প্রসঙ্গে পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে-

فَنَبَذْنَاهُ بِالْعَرَاءِ وَهُوَ سَقِيْمٌوَاَنْبَۢتْنَا عَلَيْهِ شَجَرَةً مِّنْ يَقْطِيْنٍ.

অর্থ: অতঃপর আমি (হযরত ইউনূস আলাইহিস সালাম) উনাকে এক বৃক্ষলতা শূন্য  উপকূলে (মাছের পেট থেকে) বের করলাম, তখন তিনি ছিলেন রুগ্ন। আমি উনার উপর (ছাউনী হিসেবে) এক লতাবিশিষ্ট বৃক্ষ (কদু গাছ) উদগত করলাম। (পবিত্র সূরা ছফফাত শরীফ:পবিত্র আয়াত শরীফ ১৫-১৪৬)

নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি তরকারী হিসেবে কদুকে পছন্দ করেছেন।

হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে মুহম্মদ ইবনে জাফর ইবনে হাইয়ান আসবাহানী (বিলাদত শরীফ ২৭৪ হিজরী বিছাল শরীফ ৩৬৯ হিজরী) তিনি উনার কিতাবে এ প্রসঙ্গে পবিত্র হাদীছ শরীফ বর্ণনা করেন-

عَنْ حَضْرَتْ اَنَسٍ رَضِىَ اللهُ تَعَالٰى عَنْهُ قَالَ كَانَ النَّبِيُّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ يكثر من اَكل الدباء. فقلت يَا رَسُوْلَ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ! اِنك تكثر من اَكل الدباء قال اِنه يكثر الدماغ و يزيد في العقل .

অর্থ: হযরত আনাস ইবনে মালিক রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি প্রচুর পরিমাণে কদু তরকারী খেতেন। আমি বললাম, ইয়া রসূলাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আপনি প্রচুর পরিমাণে কদু তরকারী কেন খাচ্ছেন? নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বললেন, কদু মগজের শক্তি বৃদ্ধি করে এবং স্মরণশক্তি প্রখর করে। (আখলাকুন নবী ওয়া আদাবুহ ৩য় খণ্ড ৩৩৭ পৃষ্ঠা: হাদীছ শরীফ নং ৬৭০)

অন্য বর্ণনায় বর্ণিত রয়েছে- নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি উম্মুল মুমিনীন আছ ছালিছা হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনাকে বলেন যে, তরকারীর সাথে অধিক পরিমাণে কদু রান্না করুন। কারণ এতে বিষন্ন মনে শক্তি আসে। কদু বুদ্ধি তীক্ষ্ণ করে ও মস্তিস্ককে শক্তিশালী করে।

শুকনা গোশত ও কদু: এছাড়াও তরকারী হিসেবে কদুর সাথে শুকনা গোশত দিয়েও রান্না করা হতো।

এ প্রসঙ্গে বর্ণিত রয়েছে-

عَنْ حَضْرَتْ اِسْحَاقَ بْنِ عَبْدِ اللهِ بْنِ اَبِـيْ طَلْحَةَ  اَنَّهُ سَـمِعَ حَضْرَتْ اَنَسَ بْنَ مَالِكٍ رَضِىَ اللهُ تَعَالٰى عَنْهُ يَقُوْلُ اِنَّ خَيَّاطًا دَعَا رَسُوْلَ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ لِطَعَامٍ صَنَعَهُ، قَالَ حَضْرَتْ اَنَسُ بْنُ مَالِكٍ رَضِىَ اللهُ تَعَالٰى عَنْهُ فَذَهَبْتُ مَعَ رَسُوْلِ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ اِلَى ذَلِكَ الطَّعَامِ، فَقَرَّبَ اِلَى رَسُوْلِ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ خُبْزًا وَمَرَقًا فِيهِ دُبَّاءٌ وَقَدِيدٌ فَرَأَيْتُ النَّبِيَّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ يَتَتَبَّعُ الدُّبَّاءَ مِنْ حَوَالَىِ الْقَصْعَةِ قَالَ فَلَمْ اَزَلْ

 

আপনার মূল্যায়ন লিখুন

Note: HTML is not translated!
    খারাপ           ভালো